Image result for “যারা টাকা, গম, চাল মেরে খায়; সে যদি আমার ছেলেও হয়, তাদের ভোট দেবেন না”

তিনি আরও বলেন, “সকল রাজনৈতিক দল থেকে সৎ, চরিত্রবান ও যোগ্য ব্যক্তিদের মনোনয়ন দেওয়া উচিৎ। অসৎ ব্যক্তিরা নির্বাচিত হলে দেশের কোনো উন্নয়ন হবে না।

রাষ্ট্রপতি বলেন, “যারা টিআর-কাবিখার টাকা, গম, চাল মেরে খায়; সে যদি আমার ছেলেও হয়, তাদের ভোট দেবেন না।” এসময় তার ছেলে স্থানীয় সংসদ সদস্য রেজওয়ান আহাম্মদ তৌফিকও অনুষ্ঠানে ছিলেন।

কিশোরগঞ্জ-৪ (ইটনা, মিঠামইন, অষ্টগ্রাম) আসন থেকে সংসদ সদস্য নির্বাচিত হয়ে আসছিলেন আবদুল হামিদ। তিনি রাষ্ট্রপতি হওয়ার পর এখন ছেলে তৌফিক ওই আসনে আওয়ামী লীগ থেকে সংসদে প্রতিনিধিত্ব করছেন।

তিনি বলেন, “আমি স্বপ্ন দেখি উন্নত ভবিষ্যতের। এক সময় সমস্ত হাওর এলাকায় রাস্তাঘাট হবে। কৃষক নির্বিঘ্নে তাদের উৎপাদিত ফসল ঘরে তুলতে পারবে। হাওরে ফ্লাইওভার হবে। ফ্লাইওভার দিয়ে হাওরের মানুষ জেলা শহর কিশোরগঞ্জ ও ঢাকার সঙ্গে যোগাযোগ করবে।

“এটা আমার ঘুমিয়ে দেখা স্বপ্ন বা দিবাস্বপ্ন নয়। এ স্বপ্ন বাস্তবায়িত হবে একদিন। হয়ত সেদিন আমি থাকব না। কিন্তু হাওরের মানুষ সে সুফল একদিন ভোগ করবে।”

৫ দিনের সফরে সোমবার বিকালে নিজ এলাকা কিশোরগঞ্জে পৌঁছেন রাষ্ট্রপতি। হেলিকপ্টারে  অষ্টগ্রাম নামার পর অটোরিকশায় চড়ে নতুন ডাকবাংলোতে যান তিনি।

বিকালে সংবর্ধনা অনুষ্ঠানের পর সন্ধ্যায় তিনি ‘রাষ্ট্রপতি আবদুল হামিদ মিলনায়তনে’ স্থানীয় রাজনৈতিক নেতা, বিশিষ্ট ব্যক্তি ও গণমাধ্যম প্রতিনিধিদের সঙ্গে মতবিনিময় করেন।

অষ্টগ্রাম উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ফজলুল হক হায়দারী বাচ্চুর সভাপতিত্বে এই সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন কিশোরগঞ্জ-২ আসনের সংসদ সদস্য সোহরাব উদ্দিন, কিশোরগঞ্জ-৫ আসনের সংসদ সদস্য মো. আফজাল হোসেন।

© Copyright 2014-2018, All Rights Reserved ||| Powered By AnyNews24.Com || Developer By Abir-Group

%d bloggers like this:
www.scriptsell.net