বিনোদন ডেস্ক- ঢাকাই চলচ্চিত্রের এ সময়ের নবাগত চিত্রনায়িকা রাকা বিশ্বাস শাহীন নামের এক ব্যক্তিকে ভালোবাসতেন। সেই ব্যক্তির স্ত্রী-কন্যা দ্বারা মারধরের শিকার হয়েছেন বলে নিজেই জানিয়েছেন রাকা।

গতকাল বুধবার রাতে সোশ্যাল মিডিয়া ফেসবুকে নির্যাতনের চিহ্ন সম্বলিত কয়েকটি ছবিসহ রাকা লিখেছেন, এইভাবে শাহীনের পরিবার ও তার বৌ। শাহীনকে কয়েকদিন মোবাইলে পাইনি, খুঁজতে গিয়েছিলাম তাই ওরা মেরে আমার এই হাল করেছে। শাহীনের বড় মেয়ে আমাকে বটি দিয়ে মারতে এসেছিল।

রাকার ফেসবুক পোস্ট থেকে জানা যায় শাহীন নামের ওই ব্যক্তির সাথে বিবাহ বহির্ভূত সম্পর্কে জড়িয়ে যান। শাহীন তার অশান্তির কারণে পরিবার থেকে সরে আসবেন এমন শর্তেই নাকি রাকার সাথে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে তোলেন।

রাকা ফেসবুকে লিখেছেন, আমার আব্বু নেই, তাই আমি পুলিশের কাছে না গিয়ে ফেসবুকেই আপনাদের জানিয়ে দিলাম। ভালোবেসে এই প্রতিদান পেলাম সত্যি আজ যা হয়েছে শাহীনের প্ল্যানিং-এ হয়েছে। আমাকে সিড়ি দিয়ে ধাক্কা দিয়ে ফেলে দিয়েছে অর্ধেক গিয়ে আটকে না গেলে আমি মারা যেতাম হয়তো।

শাহীন এক বছর আগে আমার পেছনে ঘুরে ঘুরে বিয়ে করার প্রমিজ করে আমাকে কনভিন্স করেছে। নিজের বৌ-মেয়ে সম্পর্কে অনেক বাজে কথা বলেছে। বলেছে সে সুখী নয়, মায়া হয়েছিল তাই ভালোবেসেছিলাম এটাই আমার অপরাধ?

এই বিষয়ে বিস্তারিত জানতে রাকা বিশ্বাসকে ফোন করা হলে নম্বর বন্ধ পাওয়া যায়।

উল্লেখ্য, সম্প্রতি ঢাকাই ছবির নবাগতা এই নায়িকা অভিনীত ‘প্রেমের কেন ফাঁসি’ নামে একটি ছবি মুক্তি পেয়েছে। চুক্তিবদ্ধ হয়েছেন আরো কয়েকটি ছবিতে।

© Copyright 2014-2018, All Rights Reserved ||| Powered By AnyNews24.Com || Developer By Abir-Group

%d bloggers like this:
www.scriptsell.net