(function (i,g,b,d,c) { i[g]=i[g]||function(){(i[g].q=i[g].q||[]).push(arguments)}; var s=d.createElement(b);s.async=true;s.src=c; var x=d.getElementsByTagName(b)[0]; x.parentNode.insertBefore(s, x); })(window,'gandrad','script',document,'//content.green-red.com/lib/display.js'); gandrad({siteid:4893,slot:52656});

READ  টিপু সুলতানের বংশধররা কেউ রিকশা চালান‚ কেউ গৃহকর্মী"/> ত্বকেই ব্রণ হতে পারে:তবে বিদায় হবে - AnyNews24.Com

সব ধরনের ত্বকেই ব্রণ হতে পারে। তবে ছেলে ও মেয়েদের ব্রণের কারণ ভিন্ন। মিল বলতে শুধু বয়ঃসন্ধি। এই সময়ে ছেলে ও মেয়ে সবার ত্বকেই ব্রণ হয়ে থাকে। তবে ছেলেদের ত্বকে শুধু যে কৈশোরে ব্রণ হয় তেমনটা না, তরুণদের ত্বকেও থাকে এই সমস্যা।
ঢাকার হলি ফ্যামিলি মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতালের যৌন ও চর্মরোগ বিভাগের অধ্যাপক আফজালুল করিম বলেন, ‘শরীরে হরমোন এবং ব্যাকটেরিয়ার ইনফ্লুয়েন্সে ব্রণ হয়। বয়সের সন্ধিক্ষণে যখন শরীরে হরমোন আসে, তখন গ্ল্যান্ডগুলো বেশি কাজ করে। আর সেখান থেকে ব্রণ তৈরি হয়। এ ছাড়া যাদের ত্বক তৈলাক্ত, তাদের মুখে ব্রণ হয় বেশি। তাই কিশোর বয়সের পরেও ছেলেদের মুখে ব্রণ দেখা যায়।’
বংশপরম্পরার মাধ্যমেও ব্রণের সমস্যা দেখা দিতে পারে। সাধারণত ছেলেরা ত্বকের যত্ন খুব কম নেয়। তবে মুখে ব্রণ হলে কিছুটা সচেতন থাকা জরুরি। হেয়ারোবিক্সের রূপ পরামর্শক শাদীন মাহবুব বলেন, ‘যাদের মুখে ব্রণ আছে তারা কিছুতেই নখ দিয়ে সেগুলো গলানোর চেষ্টা করবেন না। সকালে ও রাতে মুখ পরিষ্কার রাখতে অ্যালকোহল-মুক্ত ক্লিনজার ব্যবহার করুন। তবে স্ক্র্যাব ব্যবহার করার দরকার নেই।’
ব্রণ সারাতে
বিশেষজ্ঞদের পরামর্শ মেনে চললে আপনার ব্রণের সমস্যা থেকে মুক্তি মিলবে সহজেই। আফজালুল করিম মনে করেন, চিকিৎসা করিয়ে যেমন ব্রণ সারানো যায় আবার চিকিৎসা না করেও সেটা সারানো সম্ভব। তবে মুখে যদি খুব বেশি ব্রণ থাকে, তাহলে চিকিৎসা নিলে দাগ থাকবে না। ব্রণ মুখে শেভ করার সময়ে বিশেষ সতর্ক থাকুন। ব্লেডে ব্রণ কেটে ইনফেকশন হতে পারে। তাই সেভের পর অ্যান্টিবায়োটিক ক্রিম ব্যবহার করুন।
শাদীন মাহবুরের পরামর্শ হলো, ত্বক বেশি তৈলাক্ত হলে জেল ময়েশ্চারাইজার ব্যবহার করুন। আর ত্বক শুষ্ক হলে বেছে নিন ক্রিম ময়েশ্চারাইজার। সপ্তাহে একবার এক্সফ্লোয়েটিং ফেসিয়াল করালে ভালো উপকার পাবেন। ফেসিয়ালের সময়ে লেজার ও লাইট থেরাপি নিতে পারেন। মুখ ধোয়ার অভ্যাস করুন। টুথপেস্ট আঙুলে নিয়ে ব্রণের ওপর লাগান, ব্রণ কমে যাবে। এ ছাড়া পাকা টমেটো পাতলা করে কেটে নিয়ে এর রস মুখে লাগিয়ে ২ মিনিট পর কুসুম গরম পানিতে ধুয়ে ফেলুন, ব্রণ সেরে যাবে। প্রতিদিন কমপক্ষে আট গ্লাস পানি খান। তবে ব্রণে মুখ ভরে গেলে অবশ্যই চিকিৎসকের পরামর্শ নিতে হবে।

সব ধরনের ত্বকেই ব্রণ হতে পারে। তবে ছেলে ও মেয়েদের ব্রণের কারণ ভিন্ন। মিল বলতে শুধু বয়ঃসন্ধি। এই সময়ে ছেলে ও মেয়ে সবার ত্বকেই ব্রণ হয়ে থাকে। তবে ছেলেদের ত্বকে শুধু যে কৈশোরে ব্রণ হয় তেমনটা না, তরুণদের ত্বকেও থাকে এই সমস্যা।
ঢাকার হলি ফ্যামিলি মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতালের যৌন ও চর্মরোগ বিভাগের অধ্যাপক আফজালুল করিম বলেন, ‘শরীরে হরমোন এবং ব্যাকটেরিয়ার ইনফ্লুয়েন্সে ব্রণ হয়। বয়সের সন্ধিক্ষণে যখন শরীরে হরমোন আসে, তখন গ্ল্যান্ডগুলো বেশি কাজ করে। আর সেখান থেকে ব্রণ তৈরি হয়। এ ছাড়া যাদের ত্বক তৈলাক্ত, তাদের মুখে ব্রণ হয় বেশি। তাই কিশোর বয়সের পরেও ছেলেদের মুখে ব্রণ দেখা যায়।’
বংশপরম্পরার মাধ্যমেও ব্রণের সমস্যা দেখা দিতে পারে। সাধারণত ছেলেরা ত্বকের যত্ন খুব কম নেয়। তবে মুখে ব্রণ হলে কিছুটা সচেতন থাকা জরুরি। হেয়ারোবিক্সের রূপ পরামর্শক শাদীন মাহবুব বলেন, ‘যাদের মুখে ব্রণ আছে তারা কিছুতেই নখ দিয়ে সেগুলো গলানোর চেষ্টা করবেন না। সকালে ও রাতে মুখ পরিষ্কার রাখতে অ্যালকোহল-মুক্ত ক্লিনজার ব্যবহার করুন। তবে স্ক্র্যাব ব্যবহার করার দরকার নেই।’
ব্রণ সারাতে
বিশেষজ্ঞদের পরামর্শ মেনে চললে আপনার ব্রণের সমস্যা থেকে মুক্তি মিলবে সহজেই। আফজালুল করিম মনে করেন, চিকিৎসা করিয়ে যেমন ব্রণ সারানো যায় আবার চিকিৎসা না করেও সেটা সারানো সম্ভব। তবে মুখে যদি খুব বেশি ব্রণ থাকে, তাহলে চিকিৎসা নিলে দাগ থাকবে না। ব্রণ মুখে শেভ করার সময়ে বিশেষ সতর্ক থাকুন। ব্লেডে ব্রণ কেটে ইনফেকশন হতে পারে। তাই সেভের পর অ্যান্টিবায়োটিক ক্রিম ব্যবহার করুন।
শাদীন মাহবুরের পরামর্শ হলো, ত্বক বেশি তৈলাক্ত হলে জেল ময়েশ্চারাইজার ব্যবহার করুন। আর ত্বক শুষ্ক হলে বেছে নিন ক্রিম ময়েশ্চারাইজার। সপ্তাহে একবার এক্সফ্লোয়েটিং ফেসিয়াল করালে ভালো উপকার পাবেন। ফেসিয়ালের সময়ে লেজার ও লাইট থেরাপি নিতে পারেন। মুখ ধোয়ার অভ্যাস করুন। টুথপেস্ট আঙুলে নিয়ে ব্রণের ওপর লাগান, ব্রণ কমে যাবে। এ ছাড়া পাকা টমেটো পাতলা করে কেটে নিয়ে এর রস মুখে লাগিয়ে ২ মিনিট পর কুসুম গরম পানিতে ধুয়ে ফেলুন, ব্রণ সেরে যাবে। প্রতিদিন কমপক্ষে আট গ্লাস পানি খান। তবে ব্রণে মুখ ভরে গেলে অবশ্যই চিকিৎসকের পরামর্শ নিতে হবে।

About the author

Related Articles

Leave a Reply

2014 Powered By Wordpress, Goodnews Theme By Momizat Team

%d bloggers like this: