মসজিদ বানালেন ভারতীয় খ্রিস্টান, ৮০০ রোজাদারকে দিচ্ছেন ইফতারও

সংযুক্ত আরব আমিরাতে মুসলিম শ্রমিকদের জন্য মসজিদ নির্মাণ করেছেন এক মালয়ী খ্রিস্টান। চলতি রমজান মাসে প্রায় ৮০০ শ্রমিককে ইফতারও সরবরাহ করছেন তিনি।

সাজি চেরিয়ান (৪৯) নামের এই ব্যবসায়ী ভারতের কেরালা রাজ্যের আলাপ্পুঝা জেলার কায়মকুলামের অধিবাসী। গতবছর মসজিদটি নির্মাণ করেন তিনি।

সাজি দেখলেন, নামাজ আদায় করতে শ্রমিকদের নিকটবর্তী মসজিদে যেতে হয় ট্যাক্সিতে করে। এতে তাদের উপার্জনের একটি অংশ খরচ হয়ে যায়। তাদের কষ্টের উপার্জন খরচ যাতে না হয়, সে জন্য তাদের জন্য নির্মাণ করেন মসজিদটি। 

২০০৩ সালে মাত্র কয়েক শ দিরহাম নিয়ে সংযুক্ত আরব আমিরাতে যান চেরিয়ান। আজ তিনি মোটা অংকের অর্থ খরচ করেছেন মসজিদের জন্য। রোজার মাসে প্রতিদিন আয়োজন করছেন  আট শ লোকের ইফতারও। এতে থাকে খেজুর, তাজা ফল, স্নাকস, জ্যুস, পানি এবং বিরিয়ানি।

মসজিদ কমপ্লেক্সের শীতাতপ নিয়ন্ত্রিত কনভেনশন সেন্টারে এই ইফতার আয়োজনে শ্রমিকরা ছাড়াও যোগ দেন বিভিন্ন কম্পানির জ্যেষ্ঠ কর্মকর্তারা।

চেরিয়ান বলেন, ‘গত বছর রমজানের ১৭তম রাতে মসজিদটি উদ্বোধন করা হয়। তাই, আমি কেবল অবশিষ্ট দিনের জন্য রোজাদারদের ইফতার দিতে পারি। এই বছর থেকে আমি প্রতিদিন এটি করতে পারছি।’ তিনি বলেন, আমি একেকদিন একেক ধরনের বিরিয়ানির ব্যবস্থা করি, যাতে রোজাদাররা প্রতিদিন একইরকম খাবার খেয়ে বিরক্ত না হয়।

গতকাল বুধবার ইফতার আয়োজনে যোগ দেন আবদুল কাইয়ুম নামের এক পাকিস্তানি। ৬৩ বছর বয়সী এই বাসচালক চেরিয়ানের কাজের প্রশংসা করেন। তিনি বলেন, ‘বিশ্বে চেরিয়ানের মতো মানুষের প্রয়োজন। যদি তাঁর মতো মানুষ না থাকে, তবে পৃথিবী শেষ হয়ে যাবে। আমরা তাঁর জন্য প্রার্থনা করছি। আল্লাহ তাঁর মঙ্গল করবেন।’

ভাজাস আব্দুল ওয়াহিদ একজন ভারতীয়। আমিরাতে একটি কম্পানির সহকারী পরিচালক। তিনি বলেন, এ অঞ্চলে ৫০টিরও বেশি কম্পানির কর্মচারীর বসবাস।

আব্দুল ওয়াহিদ বলেন, ‘এ অঞ্চলে জ্যেষ্ঠ কর্মকর্তা ও শ্রমিকদের থাকার ব্যবস্থা পৃথক। কিন্তু, আমরা যখন এখানে আসি, সবাই এক হয়ে যাই। আমরা একসঙ্গে ইফতার করে নামাজ পড়ি।’

সূত্র : মনোরমা অনলাইন

© Copyright 2014-2018, All Rights Reserved ||| Powered By AnyNews24.Com || Developer By Abir-Group

%d bloggers like this:
www.scriptsell.net