সায়েন্স ল্যাব মোড়ে সংঘর্ষ

ঢাকা, ০৫ আগস্ট- নিরাপদ সড়কের দাবিতে আন্দোলনরত শিক্ষার্থীদের ওপর হামলার প্রতিবাদে নিপীড়নবিরোধী শিক্ষার্থীদের ব্যানারে আন্দোলনে নামা বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষার্থীদের ওপর হামলা ও সংঘর্ষের ঘটনা ঘটেছে। রাজধানীর সায়েন্স ল্যাব মোড়ে রোববার দুপুরে শিক্ষার্থীদের ওপর প্রথমে হামলা চালানো হলে পরে তা সংঘর্ষে রূপ নেয়। এ ঘটনায় বেশ কয়েকজন শিক্ষার্থী, সাংবাদিক ও পথচারী আহত হয়।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, নিপীড়নবিরোধী শিক্ষার্থীদের ব্যানারে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়, বাংলাদেশ প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয় ও ঢাকা মেডিকেল কলেজের প্রায় হাজার তিনেক শিক্ষার্থী রোববার দুপুর পৌনে ১টার দিকে শাহবাগ থেকে মিছিল নিয়ে জিগাতলা বাসস্ট্যান্ড এলাকায় জড়ো হয়। এ সময় তারা নিরাপদ সড়কের দাবিতে আন্দোলনরত শিক্ষার্থীদের ৯ দফা দাবি মেনে নিতে এবং শিক্ষার্থীদের ওপর হামলা বিচার ও নৌমন্ত্রীর পদত্যাগ দাবিতে স্লোগান দিতে শুরু করে। এক পর্যায়ে শিক্ষার্থীরা সড়কে অবস্থান নেওয়ার চেষ্টা করলে পুলিশ টিয়ার সেল ছুড়ে তাদের ছত্রভঙ্গ করে দেয়।পরে শিক্ষার্থীরা সায়েন্স ল্যাব মোড়ের দিকে গেলে তাদের ওপর হামলার ঘটনা ঘটে। এ সময় সেখানে পুলিশের সঙ্গে অবস্থান নিয়ে হেলমেট পরিহিত একদল যুবককে লাঠিসোটা হাতে শিক্ষার্থীদের ওপর হামলা চালাতে দেখা যায়। এতে উভয়পক্ষের মধ্যে সংঘর্ষ বেধে যায়।

আন্দোলনরত শিক্ষার্থীদের দাবি, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ও ঢাকা কলেজ ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা হেলমেট পড়ে তাদের ওপর হামলা চালাচ্ছে। হামলায় পাঁচ শিক্ষার্থী আহত হয়েছে বলেও দাবি করেছেন তারা।

এদিকে হামলা-সংঘর্ষের খবর ও ছবি সংগ্রহ করতে গিয়ে বাধার মুখে পড়ছেন সাংবাদিকরা। হেলমেট পরিহিত যুবকরা সাংবাদিকদের মারধর করছে এবং ছবি তুলতে বাধা দিচ্ছে। এছাড়া ছবি তুললে প্রাণনাশের হুমকি দেওয়া হচ্ছে বলেও অভিযোগ পাওয়া গেছে। হামলায় বার্তা সংস্থা এপির ফটোসাংবাদিক কে এম আহাদসহ অন্তত ২০ জন সাংবাদিক আহত হয়েছেন। এছাড়া এক নারী সাংবাদিক এ সময় লাঞ্ছনার শিকার হন।

এর আগে দুপুর পৌনে ১টার দিকে জিগাতলা বাসস্ট্যান্ড এলাকায় বিক্ষোভ করে বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষার্থীরা। তবে শিক্ষার্থীরা সড়কে অবস্থান নেওয়ার চেষ্টা করলে পুলিশ টিয়ার সেল ছুড়ে তাদের ছত্রভঙ্গ করে দেয়। এক পর্যায়ে পুলিশের তাড়া খেড়ে প্রায় হাজার খানেক শিক্ষার্থী ধানমণ্ডি লেকে আটকা পড়ে। পরে পুলিশ তাদের সেখানে থেকে বের করে সায়েন্সল্যাব মোড়ের দিকে পাঠিয়ে দেয়।

নিপীড়নবিরোধী শিক্ষার্থীদের ব্যানারে আন্দোলনরত ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের রাষ্ট্রবিজ্ঞান বিভাগের শিক্ষার্থী তরিকুল ইসলাম সে সময় জানান, ফেসবুকে শনিবার ঘোষণা দেওয়া কর্মসূচির অংশ হিসেবে রোববার তারা প্রতিবাদ জানাতে জিগাতলে মোড়ে অবস্থান নেন।

তিনি দাবি করেন, শিক্ষার্থীরা শান্তিপূর্ণভাবে অবস্থান নিয়েছিল। কিন্তু পুলিশ বিনা উসকানিতে লাঠিপেটা করে ও টিয়ারসেল ছুড়ে তাদের সরিয়ে দিয়েছে।

এদিকে শনিবারের সংঘর্ষের ঘটনার পর রোববার ধানমণ্ডিতে আওয়ামী লীগ কার্যালয়ের সামনে দলটির নেতাকর্মীরা অবস্থান নিয়েছেন। অপ্রীতিকর পরিস্থিতি এড়াতে ওই এলাকায় বিপুল সংখ্যক পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে।

সূত্র: সমকাল

© Copyright 2014-2018, All Rights Reserved ||| Powered By AnyNews24.Com || Developer By Abir-Group

%d bloggers like this:
www.scriptsell.net