পৃথিবী যেন সভ্যতার উল্টো দিকেই হাঁটছে। গুরুজনরা বলেন যায় দিন ভাল আসে দিন খারাপ। কেননা বিশ্বব্যাপী নারীদের ওপর নির্যাতনের ঘটনা ক্রমাগত বাড়ছেই।

বিশ্বের নানা প্রান্তে নানা রকমভাবে বেড়ে চলেছে এই ঘটনা। নারীদের জন্য বিশ্বের সবচেয়ে নিরাপত্তাহীন দেশগুলোর তালিকায় উঠে এসেছে পাকিস্তান ও ভারতের নামও। কিন্তু নেই বাংলাদেশের নাম। নাম। যা বাংলাদেশের জন্য একটি বড় অর্জন।

১কলম্বিয়া

এই দেশে মেয়েদের নিরাপত্তা একেবারে তলানিতে এসে ঠেকেছে। নিত্যদিনের দুর্নীতি এখানকার মানুষকে বিপর্যস্ত করে তুলেছে। মেয়েদের জন্য সবচেয়ে কম নিরাপদ দেশের তালিকায় তাই সবচেয়ে আগে কলম্বিয়া। ২০০১ সাল থেকে প্রায় ৪৫০০ নারীঘটিত অপরাধের ঘটনা এখানে রেজিস্ট্রার হয়েছে।

২. পাকিস্তান

এশিয়ার অন্যান্য দেশগুলির মধ্যে মেয়েদের ওপর সবচেয়ে বেশি অপরাধের ঘটনা ঘটে পাকিস্তানে। বিশ্বের নিরিখে এই দেশ মেয়েদের জন্য সবচেয়ে কম নিরাপদ দেশেগুলির তালিকায় দ্বিতীয়। দেশটির নারীদের ৮০ শতাংশই তাদের জীবদ্দশায় কোনো না কোনো ধরনের শারীরিক ও মানসিক নির্যাতনের মধ্য দিয়ে যায়।

৩. কঙ্গো

একটি বিশেষ মার্কিন পর্যবেক্ষণের রিপোর্টে দেখা গিয়েছে কঙ্গোতে প্রায় প্রত্যেকদিন ১০০০ এর কাছাকাছি নারীকে ধর্ষণ করা হয়। তাই তালিকায় এটি রয়েছে তৃতীয় স্থানে।

৪. আফগানিস্তান

আফগানিস্তানেও নারীদের নিরাপত্তা ক্ষুণ্ণ হওয়ার প্রমাণ মেলে। কম বয়সে জোর করে বিয়ে দেওয়ার রীতি থেকেই এখানে জন্ম নেয় নারীঘটিত অপরাধের শেকড়।

৫. ব্রাজিল

অপহরণ থেকে ধর্ষণ, খুন, ব্রাজিলে সমস্ত রকমের মহিলাঘটিত অপরাধের খবর পাওয়া যায়। বিশ্বের মহিলাদের জন্য কম নিরাপদ দেশের তালিকায় এর স্থান ৫ নম্বরে।

৬. মেক্সিকো

নারী পাচারচক্র থেকে নারীদের নিয়ে আরো নানা অবৈধ কারবারিরা এ দেশে খুবই বেশি। এ ছাড়া দাম্পত্য হিংসার পরিসংখ্যানও এ দেশে খুব একটা কম নয়।

৭. ভারত

মেয়েদের নিরাপত্তা তলানিতে থাকা দেশের তালিকা থেকে বাদ যায়নি ভারতও। তালিকায় এ দেশ ৭ নম্বরে। নির্ভয়া কাণ্ড থেকে একের পর এক নৃশংস যৌন নির্যাতনের ঘটনা এই দেশকে বহুবার লজ্জায় ফেলেছে।

৮. সোমালিয়া

আফ্রিকার দেশ সোমালিয়াতেও নারী নির্যাতনের হার কিছু কম নয়। তালিকায় এ দেশ ৮ নম্বরে।

৯. কেনিয়া

কেনিয়াতে মেয়েদের পড়াশোনার হার অত্যন্ত কম। তাই এখানে অকথ্য ভাবে নারীদের ওপর নির্যাতন চালানো হয়।

১০. মিসর

মিসরে প্রায় ১৭ শতাংশ মেয়েকে কম বয়সে জোর করে বিয়ে দেওয়া হয়। নারীদের জন্য বিশ্বের কম নিরাপদ দেশের তালিকায় এই দেশ জায়গা করে নিয়েছে ১০ নম্বরে।

 

পৃথিবী যেন সভ্যতার উল্টো দিকেই হাঁটছে। গুরুজনরা বলেন যায় দিন ভাল আসে দিন খারাপ। কেননা বিশ্বব্যাপী নারীদের ওপর নির্যাতনের ঘটনা ক্রমাগত বাড়ছেই।

বিশ্বের নানা প্রান্তে নানা রকমভাবে বেড়ে চলেছে এই ঘটনা। নারীদের জন্য বিশ্বের সবচেয়ে নিরাপত্তাহীন দেশগুলোর তালিকায় উঠে এসেছে পাকিস্তান ও ভারতের নামও। কিন্তু নেই বাংলাদেশের নাম। নাম। যা বাংলাদেশের জন্য একটি বড় অর্জন।

১কলম্বিয়া

এই দেশে মেয়েদের নিরাপত্তা একেবারে তলানিতে এসে ঠেকেছে। নিত্যদিনের দুর্নীতি এখানকার মানুষকে বিপর্যস্ত করে তুলেছে। মেয়েদের জন্য সবচেয়ে কম নিরাপদ দেশের তালিকায় তাই সবচেয়ে আগে কলম্বিয়া। ২০০১ সাল থেকে প্রায় ৪৫০০ নারীঘটিত অপরাধের ঘটনা এখানে রেজিস্ট্রার হয়েছে।

২. পাকিস্তান

এশিয়ার অন্যান্য দেশগুলির মধ্যে মেয়েদের ওপর সবচেয়ে বেশি অপরাধের ঘটনা ঘটে পাকিস্তানে। বিশ্বের নিরিখে এই দেশ মেয়েদের জন্য সবচেয়ে কম নিরাপদ দেশেগুলির তালিকায় দ্বিতীয়। দেশটির নারীদের ৮০ শতাংশই তাদের জীবদ্দশায় কোনো না কোনো ধরনের শারীরিক ও মানসিক নির্যাতনের মধ্য দিয়ে যায়।

৩. কঙ্গো

একটি বিশেষ মার্কিন পর্যবেক্ষণের রিপোর্টে দেখা গিয়েছে কঙ্গোতে প্রায় প্রত্যেকদিন ১০০০ এর কাছাকাছি নারীকে ধর্ষণ করা হয়। তাই তালিকায় এটি রয়েছে তৃতীয় স্থানে।

৪. আফগানিস্তান

আফগানিস্তানেও নারীদের নিরাপত্তা ক্ষুণ্ণ হওয়ার প্রমাণ মেলে। কম বয়সে জোর করে বিয়ে দেওয়ার রীতি থেকেই এখানে জন্ম নেয় নারীঘটিত অপরাধের শেকড়।

৫. ব্রাজিল

অপহরণ থেকে ধর্ষণ, খুন, ব্রাজিলে সমস্ত রকমের মহিলাঘটিত অপরাধের খবর পাওয়া যায়। বিশ্বের মহিলাদের জন্য কম নিরাপদ দেশের তালিকায় এর স্থান ৫ নম্বরে।

৬. মেক্সিকো

নারী পাচারচক্র থেকে নারীদের নিয়ে আরো নানা অবৈধ কারবারিরা এ দেশে খুবই বেশি। এ ছাড়া দাম্পত্য হিংসার পরিসংখ্যানও এ দেশে খুব একটা কম নয়।

৭. ভারত

মেয়েদের নিরাপত্তা তলানিতে থাকা দেশের তালিকা থেকে বাদ যায়নি ভারতও। তালিকায় এ দেশ ৭ নম্বরে। নির্ভয়া কাণ্ড থেকে একের পর এক নৃশংস যৌন নির্যাতনের ঘটনা এই দেশকে বহুবার লজ্জায় ফেলেছে।

৮. সোমালিয়া

আফ্রিকার দেশ সোমালিয়াতেও নারী নির্যাতনের হার কিছু কম নয়। তালিকায় এ দেশ ৮ নম্বরে।

৯. কেনিয়া

কেনিয়াতে মেয়েদের পড়াশোনার হার অত্যন্ত কম। তাই এখানে অকথ্য ভাবে নারীদের ওপর নির্যাতন চালানো হয়।

১০. মিসর

মিসরে প্রায় ১৭ শতাংশ মেয়েকে কম বয়সে জোর করে বিয়ে দেওয়া হয়। নারীদের জন্য বিশ্বের কম নিরাপদ দেশের তালিকায় এই দেশ জায়গা করে নিয়েছে ১০ নম্বরে।

© Copyright 2014-2018, All Rights Reserved ||| Powered By AnyNews24.Com || Developer By Abir-Group

%d bloggers like this:
www.scriptsell.net