তুই আজীবন আমাকে ‘বাবা’ বলে ডাকবি, মীমকে বললেন প্রসেনজিৎ

কলকাতা, ০৯ জুলাই- তিনি প্রসেনজিৎ চট্টোপাধ্যায়।  তিনিই কলকাতার ‘ইন্ডাস্ট্রি’।  বাংলা ছবির দুনিয়ার বহু ভাঙা-গড়ার সাক্ষী তিনি।  আর সময়ের সেই ওঠাপড়াকে অঙ্গ করেই বদলে বদলে গিয়েছেন তিনি নিজেও।

তাঁর সমসাময়িকরা যখন অভিনয় দুনিয়া থেকে অনেকখানি দূরে, তখন তিনি নিজেকে এই পরিবর্তিত দুনিয়ার সঙ্গে মানিয়ে নিয়ে হয়ে উঠেছেন সমকালীন।  সেই ‘অমর সঙ্গী’ থেকে ‘জাতিস্মর’- তাঁর অভিনয়ের শঙ্খচিলের উড়ান আজও একইরকম।  আর সেই তারকার সঙ্গে দেখা যাবে এবার বাংলাদেশি অভিনেত্রী বিদ্যা সিনহা মীমকে।

সৃজিতের সিনেমায় একসঙ্গে দেখা যাবে তাদের।  মীম নিজেই তার এই শুটিংয়ের অভিজ্ঞতা বলতে গিয়ে বলেন, ‘বুম্বা দা’র (প্রসেনজিৎ) ভক্ত আমি সেই শৈশব থেকেই।  খুব স্বাভাবিকভাবে আমাদের বয়সী যে কেউই তার কাছে গেলে মোহগ্রস্ত হয়ে যায়।  কিন্তু এত বড় অভিনেতার সাথে স্ক্রিন শেয়ার করার বিষয়টাও তো কঠিন ব্যাপার।  তাই প্রথম শুটিংয়ের দিন খুব ভয় পেয়ে গিয়েছিলাম।  ইনফ্যাক্ট আগের দিন টানা কয়েক ঘণ্টা ধরে আমি স্ক্রিপ্ট মুখস্থ করেছি।

কিন্তু শুটিংয়ের আগে তিনি বলেন, আজ থেকে তুই আমার মেয়ে।  আমাকে সেটের বাইরে শুধু না, আজ থেকে আজীবন তুই আমাকে ‘বাবা’ বলে ডাকবি।  এরপর সত্যিকার অর্থেই তিনি মেয়ের মতোই এখন অবধি খোঁজখবর রাখেন।  আমাকে অভিনয়ের নানা কৌশল শেখালেন।  কিভাবে কতটা সহজ হওয়া যায় স্ক্রিনে।  সত্যিই আমি আমার ক্যারিয়ারে নতুন এক অভিভাবক বাবাকে পেলাম।

তুই আজীবন আমাকে ‘বাবা’ বলে ডাকবি, মীমকে বললেন প্রসেনজিৎ

কলকাতা, ০৯ জুলাই- তিনি প্রসেনজিৎ চট্টোপাধ্যায়।  তিনিই কলকাতার ‘ইন্ডাস্ট্রি’।  বাংলা ছবির দুনিয়ার বহু ভাঙা-গড়ার সাক্ষী তিনি।  আর সময়ের সেই ওঠাপড়াকে অঙ্গ করেই বদলে বদলে গিয়েছেন তিনি নিজেও।

তাঁর সমসাময়িকরা যখন অভিনয় দুনিয়া থেকে অনেকখানি দূরে, তখন তিনি নিজেকে এই পরিবর্তিত দুনিয়ার সঙ্গে মানিয়ে নিয়ে হয়ে উঠেছেন সমকালীন।  সেই ‘অমর সঙ্গী’ থেকে ‘জাতিস্মর’- তাঁর অভিনয়ের শঙ্খচিলের উড়ান আজও একইরকম।  আর সেই তারকার সঙ্গে দেখা যাবে এবার বাংলাদেশি অভিনেত্রী বিদ্যা সিনহা মীমকে।

সৃজিতের সিনেমায় একসঙ্গে দেখা যাবে তাদের।  মীম নিজেই তার এই শুটিংয়ের অভিজ্ঞতা বলতে গিয়ে বলেন, ‘বুম্বা দা’র (প্রসেনজিৎ) ভক্ত আমি সেই শৈশব থেকেই।  খুব স্বাভাবিকভাবে আমাদের বয়সী যে কেউই তার কাছে গেলে মোহগ্রস্ত হয়ে যায়।  কিন্তু এত বড় অভিনেতার সাথে স্ক্রিন শেয়ার করার বিষয়টাও তো কঠিন ব্যাপার।  তাই প্রথম শুটিংয়ের দিন খুব ভয় পেয়ে গিয়েছিলাম।  ইনফ্যাক্ট আগের দিন টানা কয়েক ঘণ্টা ধরে আমি স্ক্রিপ্ট মুখস্থ করেছি।

কিন্তু শুটিংয়ের আগে তিনি বলেন, আজ থেকে তুই আমার মেয়ে।  আমাকে সেটের বাইরে শুধু না, আজ থেকে আজীবন তুই আমাকে ‘বাবা’ বলে ডাকবি।  এরপর সত্যিকার অর্থেই তিনি মেয়ের মতোই এখন অবধি খোঁজখবর রাখেন।  আমাকে অভিনয়ের নানা কৌশল শেখালেন।  কিভাবে কতটা সহজ হওয়া যায় স্ক্রিনে।  সত্যিই আমি আমার ক্যারিয়ারে নতুন এক অভিভাবক বাবাকে পেলাম।

Leave a Reply

© Copyright 2014-2018, All Rights Reserved ||| Powered By AnyNews24.Com || Developer By Abir-Group

%d bloggers like this:
www.scriptsell.net