মেয়েরা যা করবে তাই নিয়েই আপনাদের সমস্যা। এতো সমস্যা কেন আপনাদের। কিছুক্ষণ আগে একটা পোস্ট দিয়েছি। সেখানে আমার দুটা ছবি দেয়া আছে। দেখি একজন কমেন্টস করল আপনি বেশি শুকনা, আপনার ‘ওয়েট প্রোটন’ করা উচিত। অন্"/>

মেয়েরা যা করবে তাই নিয়েই আপনাদের সমস্যা। এতো সমস্যা কেন আপনাদের। কিছুক্ষণ আগে একটা পোস্ট দিয়েছি। সেখানে আমার দুটা ছবি দেয়া আছে। দেখি একজন কমেন্টস করল আপনি বেশি শুকনা, আপনার ‘ওয়েট প্রোটন’ করা উচিত।

অন্যদিকে, আগে মডেলদের বলা হতো- ও বাংলাদেশের নায়িকা মোটা তো হবেই। মানে বাংলাদেশের অভিনেতা-অভিনেত্রীরা মোটা হবেই। যখন আমরা ফিগার সচেতন হই, এগুলো নিয়ে কথা বলি, তখন আবার বলা হয় আপনি বেশি শুকনা, এতো শুকনা কেন? এতো শুকনা হলে ভালো লাগে না।

এরপর আবার বলা হয়- বাংলাদেশের মডেল ৫ ফিট ৪ ইঞ্চি হবে। তার থেকে বেশি তো হবে না। ইন্ডিয়ান বা বাহিরের মডেলগুলোকে দেখেছেন। তারা দেখতে অনেক লম্বা, কত সুন্দর। এবং যখন আমার কথা আসে, আমি ৫ ফিট ১০ ইঞ্চি। তখন বলা হয় বেশি লম্বা, খাম্বার মতো, এতো লম্বা কেন? বাঙালি মেয়েদের এতো লম্বা মানায় না। অন্যদিকে, কালো হলে বলা হয় আপনি অনেক কালো, বড় মেয়েটা দেখতে অনেক সুন্দর।

ফেসবুকে আমি কিছু লেখলেই, বলা হয় ‘ও সেলিব্রেটি হয়ে গেছেন, বেশি ভাব দেখান, না। আবার নরমাল একজন মেয়ে কিছু লেখলে সেখানেও সমস্যা – লাইফে তো আপনি কিছু করতে পারেননি, এতো কথা বলেন কেন? মানে মেয়েরা যা করবে তা নিয়ে আপনাদের সমস্যা। এতো সমস্যা কেন আপনাদের?

আমার ফেসবুক, আমি চালাই বা আমার ইনস্ট্রাগ্রামে ছবি আপলোড দেই। আপনার ভালো না লাগলে আনফলো করেন, কমেন্টস করার দরকার নেই। আপনাদের ডেকে ডেকে বলছি না, আপনি আমার ফেসবুকে আসেন, দেখেন কমেন্টস করেন।

নিজেরা এসে- ‘আপু হিজাব পরেন’, ‘আপু আপনি কিন্তু জাহান্নামে যাবেন’, ‘আল্লাহর কথা চিন্তা করেন’ বলে বাসায় গিয়ে পর্ন দেখেন ‘সো হোয়াট ইজ দিস’। এতো যদি সমস্যা থাকে তাহলে বলবো- বাসার মধ্যে থাকেন। বাসায় ইন্টারনেট রাখবেন না, সবার জন্য ইন্টারনেট না। ‘বানরের হাতে খন্তি দিলে যে অবস্থা হয়, আমাদের তাই হয়েছে।’

বানরের হাতে একটা খন্তা আছে মানে ইন্টারনেট এবং একটা মোবাইল আছে। এখন ওটা দিয়ে আপনারা যা ইচ্ছা তাই করবেন। আমি জানি এসব বলে কাজ হবে না, যা করার আপনারা তাই করবেন। আপনারা বলছি- মানে পার্টিকুলার কিছু মানুষকে বলছি। যাদের এতো সমস্যা। সবাইকে বলছি না।

নিজের যেটা ভালো মনে হয় সেটা করেন, আমি লম্বা না শুকনা, না কালো এবং জান্নাতে যাব, না জাহান্নামে যাব সেটা আপনাদের না দেখলেও চলবে। আমি যে রকম আছি, অনেক খুশি আছি। ধন্যবাদ।

(পিয়ার ফেসবুক লাইভ থেকে সংগৃহীত)

মেয়েরা যা করবে তাই নিয়েই আপনাদের সমস্যা। এতো সমস্যা কেন আপনাদের। কিছুক্ষণ আগে একটা পোস্ট দিয়েছি। সেখানে আমার দুটা ছবি দেয়া আছে। দেখি একজন কমেন্টস করল আপনি বেশি শুকনা, আপনার ‘ওয়েট প্রোটন’ করা উচিত।

অন্যদিকে, আগে মডেলদের বলা হতো- ও বাংলাদেশের নায়িকা মোটা তো হবেই। মানে বাংলাদেশের অভিনেতা-অভিনেত্রীরা মোটা হবেই। যখন আমরা ফিগার সচেতন হই, এগুলো নিয়ে কথা বলি, তখন আবার বলা হয় আপনি বেশি শুকনা, এতো শুকনা কেন? এতো শুকনা হলে ভালো লাগে না।

এরপর আবার বলা হয়- বাংলাদেশের মডেল ৫ ফিট ৪ ইঞ্চি হবে। তার থেকে বেশি তো হবে না। ইন্ডিয়ান বা বাহিরের মডেলগুলোকে দেখেছেন। তারা দেখতে অনেক লম্বা, কত সুন্দর। এবং যখন আমার কথা আসে, আমি ৫ ফিট ১০ ইঞ্চি। তখন বলা হয় বেশি লম্বা, খাম্বার মতো, এতো লম্বা কেন? বাঙালি মেয়েদের এতো লম্বা মানায় না। অন্যদিকে, কালো হলে বলা হয় আপনি অনেক কালো, বড় মেয়েটা দেখতে অনেক সুন্দর।

ফেসবুকে আমি কিছু লেখলেই, বলা হয় ‘ও সেলিব্রেটি হয়ে গেছেন, বেশি ভাব দেখান, না। আবার নরমাল একজন মেয়ে কিছু লেখলে সেখানেও সমস্যা – লাইফে তো আপনি কিছু করতে পারেননি, এতো কথা বলেন কেন? মানে মেয়েরা যা করবে তা নিয়ে আপনাদের সমস্যা। এতো সমস্যা কেন আপনাদের?

আমার ফেসবুক, আমি চালাই বা আমার ইনস্ট্রাগ্রামে ছবি আপলোড দেই। আপনার ভালো না লাগলে আনফলো করেন, কমেন্টস করার দরকার নেই। আপনাদের ডেকে ডেকে বলছি না, আপনি আমার ফেসবুকে আসেন, দেখেন কমেন্টস করেন।

নিজেরা এসে- ‘আপু হিজাব পরেন’, ‘আপু আপনি কিন্তু জাহান্নামে যাবেন’, ‘আল্লাহর কথা চিন্তা করেন’ বলে বাসায় গিয়ে পর্ন দেখেন ‘সো হোয়াট ইজ দিস’। এতো যদি সমস্যা থাকে তাহলে বলবো- বাসার মধ্যে থাকেন। বাসায় ইন্টারনেট রাখবেন না, সবার জন্য ইন্টারনেট না। ‘বানরের হাতে খন্তি দিলে যে অবস্থা হয়, আমাদের তাই হয়েছে।’

বানরের হাতে একটা খন্তা আছে মানে ইন্টারনেট এবং একটা মোবাইল আছে। এখন ওটা দিয়ে আপনারা যা ইচ্ছা তাই করবেন। আমি জানি এসব বলে কাজ হবে না, যা করার আপনারা তাই করবেন। আপনারা বলছি- মানে পার্টিকুলার কিছু মানুষকে বলছি। যাদের এতো সমস্যা। সবাইকে বলছি না।

নিজের যেটা ভালো মনে হয় সেটা করেন, আমি লম্বা না শুকনা, না কালো এবং জান্নাতে যাব, না জাহান্নামে যাব সেটা আপনাদের না দেখলেও চলবে। আমি যে রকম আছি, অনেক খুশি আছি। ধন্যবাদ।

(পিয়ার ফেসবুক লাইভ থেকে সংগৃহীত)

About the author

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Copyright © 2010-2019